«

»

Jun 19

Print this Post

স্বপ্ন

প্রতিটি সাফল্যের জন্য, প্রতিটি অর্জন রচনার জন্য পরিশ্রম, মেধা এবং স্বপ্ন দেখার গুরুত্ব অনেক। স্বপ্ন ব্যক্তির মননে প্রনোদনা তৈরি করে, অসাধ্যকে সাধনের, অধরাকে ধরার সুপ্ত বাসনার বীজ বপন করে। পরিশ্রম এবং মেধা স্বপ্ন ছোঁয়ার এই বীজের বিকাশে তিলে তিলে গড়ে তোলে একজন মানুষকে। নিজের কর্ম স্পৃহা এবং প্রণোদনা তৈরির হাতিয়ার মানুষের স্বপ্ন। শুধু মাত্র অভিজ্ঞতা এবং বয়োজ্যেষ্ঠতা দিয়ে সব সময় সব কিছু অর্জন করার ভাবনা মানুষের কর্ম স্পৃহার বিকাশে এক ধরনের প্রতিবন্ধকতা তৈরি করে বলেই বোধ করি। সমাজ বিপ্লবে কিংবা কোনও প্রতিষ্ঠানের অগ্রসরতার জন্য প্রয়োজন অগ্রসর স্বপ্ন দেখা, যোগ্যতার কদর করা, মেধার লালন করা এবং সর্বোপরি পরিশ্রমীদের সহায়তা করা। সিনিয়রিটি অবশ্যই যোগ্যতার মাপকাঠি, তবে এটি কখনই সর্বোচ্চ মাপকাঠি বা এক মাত্র মাপকাঠি হওয়া বাঞ্ছনীয় নয়। বোধ করি সকলেই এই বিষয়ে একমত হবেন। এই প্রসঙ্গে একটি উদাহরণ তুলে ধরছি।

 

সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা অত্যন্ত রাজনীতি সচেতন ছিলেন এবং কমিউনিটি অর্গানাইজার হিসেবে নিজের কর্মজীবন শুরু করেন। নিজ পেশায় কাজ করতে গিয়ে ওবামার উপলব্দি সমাজের বঞ্চিত শ্রেনীর উন্নয়নে প্রয়োজন তাদের জন্য যথাযথ আইনী সেবা প্রদান। নিজের এই উপলব্দি থেকে এবং নিজেকে যোগ্য হিসেবে গড়ে তুলবার জন্য বারাক ওবামা অক্সফোর্ড-এ আইন বিষয়ে পড়াশোনা করেন এবং সর্বোচ্চ নম্বর পেয়ে প্রথম কৃষ্নাঙ্গ আমেরিকান হিসেবে ১৯৯১ সালে অত্যন্ত সম্মানজনক অক্সফোর্ড ল রিভিউ এর সভাপতি নির্বাচিত হন। এরপর ১৯৯৯ সালে তিনি ইলিনয় স্টেট সিনেটের সদস্য নির্বাচিত হন । পরবর্তীতে ২০০০ সালে কংগ্রেস নির্বাচনের জন্য চার চার বারের নির্বাচিত হাউস অব রিপ্রেজেন্টিভ সদস্য ববি রাস এর সাথে প্রতিযোগিতায় অবতীর্ণ হন। বরি রাস অত্যন্ত অভিজ্ঞ এবং ঝানু রাজনীতিবিদ। অন্যদিকে বারাক ওবামা রাজনীতির অঙ্গনে এক নবীন আগন্তক। অসম এই প্রতিযোগিতায় বারাক ওবামা দলীয় প্রাইমারিতেই ববি রাস এর নিকট পরাজিত হন । নিজের এই পরাজয় থেকে দমে যাননি ওবামা। বরং কি কারণে তার পরাজয় -এই আত্ম বিশ্লেষণে মনোনিবেশ করেন। নিজের ত্রুটি থেকে শিক্ষা নিয়ে ২০০৩ সালে তিনি মার্কিন সিনেটের নির্বাচেনে অংশ গ্রহণের জন্য পুনরায় প্রতিযোগিতায় অবতীর্ন হন এবং 2004 সালে ইলিনয় থেকে কংগ্রেস ম্যান নির্বাচিত হন। ওবামা মার্কিন মুলুকের ৫ম আফ্রিকান-আমেরিকান কৃষ্নাঙ্গ সিনেটর। বয়সের বিবেচনায় ববি রাস, বারাক ওবামার চাইতে অনেক বেশী বয়োজ্যেষ্ঠে এবং যোগ্য -এই বিষয়ে নিজের সরল স্বীকারোক্তি সত্বেও নিজের যোগ্যতা সম্পর্কে বারাক ওবামা বলেন, “Seniority is important, but I think vision, imagination and hard work is more important”. নিজের যোগ্যতায় আত্ম-বিশ্বাসী, বারাক ওবামা, নিজ স্বপ্ন, মেধা এবং পরিশ্রমের মাধ্যমে ২০০৮ সালে মার্কিন মুলুকের ৪৪তম এবং প্রথম কৃষ্নাঙ্গ আমেরিকান প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হন।

 

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ৪৪তম প্রেসিডেন্ট বারাক হুসেইন ওবামা।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ৪৪তম প্রেসিডেন্ট বারাক হুসেইন ওবামা।

বারাক ওবামা স্বপ্ন দেখেছেন। স্বপ্ন বাস্তবায়নে পরিশ্রম করেছেন এবং নিজ মেধায় পরিশ্রমের ফসল ঘরে তুলেছেন। আমাদের দেশেও বোধ করি অসংখ্য যুবক স্বপ্ন দেখেন, অনেকে পরিশ্রম করেন এবং মেধার চর্চাও করেন। কিন্তু কেন যেন অসংখ্য প্রয়াস সফলতার মালা অহরহ বুনতে পারছেন না। বোধ করি এডাম স্মিথের অদৃশ্য হাত অহরহ বুননে এক অলংঘ্য দেয়াল তৈরি করছে। কিংবা অন্য কোন বাঁধা? তবে অহরহ মালা বুনতে পারি কিংবা না পারি, এইটি তো নিশ্চিত স্বপ্ন মানুষের মনের বিশালতা বাড়ায়, চিন্তার রসদ যোগায়। ব্যক্তির উন্নয়নে, উন্মুক্ত সমাজ প্রতিষ্ঠায় এবং অগ্রসর প্রতিষ্ঠানিক ভিত রচনায় পরিশ্রম, মেধা এবং স্বপ্ন দেখার যুগপৎ অভ্যাস অত্যন্ত ইতিবাচক চর্চা।

আমি জানি না, অন্যেরা কি ভাবছেন, তবে আমার কাছে এমনটিই মনে হয়।

-আহসান
২ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ খ্রিস্টাব্দ
মধুবাজার, ঢাকা।

 

Print Friendly

Permanent link to this article: http://ahsan-habib.com/dream/

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

You may use these HTML tags and attributes: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <s> <strike> <strong>